HSC Admission

একাদশ ভর্তি ২০২৩ যে ৫ টি ভুল করা যাবে না – নয়ত মহাবিপদ

Pinterest LinkedIn Tumblr

একাদশ শ্রেণীর ভর্তি ২০২৩ হতে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ধরনের ভুল করে থাকে। যার ভুক্তভোগী এইচএসসিতে দুই বছর সমস্যা তৈরি হয়।

আজকে আমরা শিক্ষার্থীদের সামনে গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি ভুল জানাবো, যে বিষয়গুলো একাদশ শ্রেণির ভর্তির সময় করা যাবে না।

আরও পড়ুনঃ

কারণ একটি ভুল শিক্ষার্থীর পড়াশোনা জীবন ধ্বংস করে দিতে পারে। মূলত শিক্ষার্থীরা একাদশ শ্রেণীর ভর্তি নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব মধ্যে থাকে।

তার কারণ হচ্ছে একাদশ শ্রেণীর ভর্তি কার্যক্রম হয়ে থাকে অনলাইনের মাধ্যমে। এখানে সরাসরি কোন কলেজে ভর্তির সুযোগ নেই,

অনলাইনে কলেজ চয়েজ দিয়ে নির্বাচন করে তাদেরকে ভর্তি হতে হবে এবং এখানে অনেকগুলো ধাপ রয়েছে। যেগুলো অতিক্রম করে শিক্ষার্থী চূড়ান্ত ভর্তি পর্যন্ত যেতে হয়।

আমরা প্রথমে শিক্ষার্থীদের কে জানাচ্ছি যে যখন কলেজ নির্বাচন করা হবে, তখন যোগ্যতা অনুযায়ী কলেজ চয়েজ দিতে হবে।

যদি কোনো শিক্ষার্থী ভুল করে তার যোগ্যতার বেশি কলেজ মূল্যায়ন করে ফেলে আবেদন করে ফেলে

আরও পড়ুনঃ

তাহলে নির্দ্বিধায় তাকে কলেজ সিলেক্ট করে দেয়া হবে না। তাই অবশ্যই শিক্ষার্থী কত নম্বর পেয়েছে তার উপর নির্ভর করে কলেজ নির্বাচন করতে হবে।

কলেজে পড়াশোনার মান সম্পর্কে শিক্ষার্থীরা জানতে হবে, কারণ সেখানে ভর্তির সময় সর্বনিম্ন পাঁচটি কলেজ আবেদন করতে পারবে।

এখানে ইচ্ছা হল পাঁচটি কলেজ দিয়ে দিলাম বিষয়টি এমন নয়। আমি যে কলেজগুলো আবেদন করব

অর্থাৎ যে পাঁচটি কলেজ সর্বনিম্ন আবেদন করছি সবগুলোর সম্পর্কে আমার ধারণা থাকতে হবে,

সেখানে পড়াশোনার মান কেমন শিক্ষক ঠিকমতো ক্লাস করাচ্ছে কিনা বিগত বছরগুলোতে কেমন রেজাল্ট হয়েছে তা জানতে হবে।

আরও পড়ুনঃ

আর্থিক অবস্থা বিবেচনা করতে হবে, বিশেষ করে যে সকল কলেজের খরচ বেশি সেগুলো আগে থেকে জেনে রাখতে হবে।

যাতে পড়াশোনার সময় কোন ধরনের সমস্যা না হয়। কারণ অনেকেই আছে অর্ধেক পড়াশোনা করে আর্থিক সমস্যার কারণে বাকি পড়াশোনা করতে পারে না।

রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা মুক্ত কলেজ নির্বাচন করতে হবে, কারণ রাজনৈতিক ভাবে যে সকল কলেজ খারাপ

পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে সেখানে না যাওয়াই ভালো। কারণ এতে পড়াশোনা ওতো ভাল হয় না।

তাই যে সকল কলেজের রাজনীতি আছে কিন্তু সুষ্ঠু পরিবেশ সেখানে ভর্তি হওয়া যেতে পারে।

আরও পড়ুনঃ

যাতায়াত সমস্যা বা বাসস্থান সমস্যা বিবেচনা করতে হবে, যদি কোনো শিক্ষার্থী শহর কেন্দ্রিক পড়াশোনা

করতে চায় তাহলে অবশ্যই তাকে যাতায়াতের ব্যবস্থা বা সেখানে থাকার জন্য হোস্টেল সুযোগ-সুবিধা চিন্তাভাবনা করতে হবে।

যদি সেরকম সুযোগ সুবিধা থাকে তবে সে যেন কলেজ নির্বাচন করে আর নয় তো গ্রামের আশেপাশে সেজে কলেজ গুলো রয়েছে সেখানে এসে ভর্তি হতে পারে।

Write A Comment