HSC Admission

একাদশ শ্রেণী ক্লাস শুরু কবে ? ক্লাস নিয়ে জরুরী আপডেট তথ্য

Pinterest LinkedIn Tumblr

একাদশ শ্রেণী অনলাইন ভর্তি কার্যক্রম প্রথমদিকে শেষ হলো, এখন চূড়ান্ত ভর্তি কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

এক্ষেত্রে কবে ক্লাস শুরু হবে এবং প্রথম ক্লাসের শিক্ষার্থীদের সাথে কি কি ঘটবে সে বিষয়গুলো নিয়ে আমরা কথা বলবো।

আরও পড়ুনঃ

তার সাথে আরও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আলোচনা করছে, মূলত শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে

প্রকাশিত ক্যালেন্ডারে বলা হয়েছে শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু করতে হবে বছরের শুরুর দিকে।

যেখানে তাদের শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়েছে 2022 সালের জুলাইয়ে কিন্তু তাদের ক্লাস শুরু হচ্ছে 2023 সালে প্রথম দিকে।

অনলাইন কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছিল ভর্তির গত ডিসেম্বর থেকে 26 জানুয়ারি পর্যন্ত ভর্তির চূড়ান্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

এর পরবর্তীতে তারা ভর্তিকৃত কলেজে ক্লাস শুরু করবে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা দিয়েছে এক ফেব্রুয়ারীতে ক্লাস শুরু হবে

অর্থাৎ পহেলা ফেব্রুয়ারি তাদের সকলকে ক্লাসে উপস্থিত থাকতে হবে এবং তাদের জন্য আনুষ্ঠানিকতা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুনঃ

কলেজ কর্তৃপক্ষ থেকে জানা যায় তারা নবীন বরণের উদ্যোগ নিয়েছে, সেদিন সকল শিক্ষার্থীকে অভিনন্দন জানাবেন

এবং তাদের সাথে শিক্ষকদের পরিচয় করে দিবে। সকল শিক্ষার্থীর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন, শিক্ষার্থীরা এই দিনে তাদের নতুন কলেজে উপস্থিত থাকে

এবং নতুন জীবনে পদার্পণ করে। সকল শিক্ষার্থীর উচিত এই দিনে কলেজে উপস্থিত থাকা এবং নবীন বরণে অংশগ্রহণ করা।

নবীন বরণের দিন শিক্ষার্থীদের কলেজে উপস্থিত থাকতে হবে, সেখানে তার সব শিক্ষকের সাথে পরিচয় হবে তার সাথে

ক্লাস রুটিন তাদের প্রকাশ করা হবে। এক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে সপ্তাহে পাঁচ দিন থেকে ক্লাস করবে

সেই দৃষ্টিকোণ থেকে তাদের ক্লাস রুটিন প্রকাশ করা হবে। যেখানে 40 মিনিটের একটি ক্লাসে থাকবে,

একাদশ শ্রেণী শেষ করে পরীক্ষায় আয়োজন করা হবে। একাদশ শ্রেণীর ক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে ক্লাস শুরু হলে

আগামী আগস্ট মাসের 16 তারিখে তাদের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হবে এবং সেপ্টেম্বর মাসের 6 তারিখে তাদের ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

আরও পড়ুনঃ

এর পরবর্তীতে তারা দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়ন করবে মূলত 24 মাস সময় পাওয়ার কথা ছিল একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর

শিক্ষার্থীদের কিন্তু তারা তাদের শিক্ষাবর্ষে সময় পাবে না। অন্ততপক্ষে তাদের থেকে সাত মাস সময় দেয়া হবে, এক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি জানাচ্ছে

তাদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস দেয়া হয় তবে এ ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এখন পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট কোনো কিছু জানায় নি।