HSC Exam

দুসংবাদঃ এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ উপলক্ষে – জেনে নেও

Pinterest LinkedIn Tumblr

উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে আগামী 6 নভেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলা প্রথম পত্রের মাধ্যমে শুরু হবে।

এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ নিয়ে নানান ধরনের সমস্যার মধ্যে রয়েছে শিক্ষাবোর্ড গুলো।

কি কি সমস্যা এবং তার উপর নির্ভর করে কি দুঃসংবাদ রয়েছে শিক্ষার্থীদের জন্য তা তুলে ধরব।

আরও পড়ুনঃ হরতালের কারণে এইচএসসি ২০২২ রুটিন পরিবর্তন হবে ?

মূলত এইচএসসি পরীক্ষার আয়োজন করা হচ্ছে বছরের একদম শেষ সময়ে। এই পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল বছরের শুরুর দিকে এপ্রিল মাসে।

কিন্তু করোনা সংক্রমণ ও বন্যার কারণে পরীক্ষা পিছিয়ে গেছে। এখনো বর্তমানে পরীক্ষা স্বাভাবিক

ভাবে নেওয়া নিয়েও দুশ্চিন্তা মধ্যে রয়েছে। তার মধ্যে পরীক্ষার সময়, নম্বর, বিষয় কমানো হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ এইচএসসি ২০২২ আসন বিন্যাস কেমন হব ? ১ বেঞ্চে কয়জন ?

বর্তমানে বাংলাদেশে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা। বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন বর্তমানে সমাবেশের কর্মসূচি পালন করছে

যার প্রভাব পড়ে কিছুটা হলেও শিক্ষা খাতে পড়ছে। এক্ষেত্রে এইচএসসি পরীক্ষার উপর এর প্রভাব কতটুকু পড়বে

তা নিয়ে সবাই কমবেশি দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছে। বর্তমানে দেখা গেছে রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে যে এলাকাগুলোতে

আরও পড়ুনঃ যে যে ভুল এইচএসসি পরীক্ষাকেন্দ্রে করা জানে না – জেনে নেও

সমাবেশ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয় সেখানে যাতায়াত ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়া হয়। যদি পরীক্ষার মধ্যে এরকম কোন ঘটনা ঘটে তাহলে

তার শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের জন্য বড় ধরনের সমস্যা তৈরি করবে। সর্বোপরি এ বিষয়টি নিয়ে দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে এর আগেও বলেছে এই সময়ের জন্য কোন বিরোধী দল বা রাজনৈতিক

আরও পড়ুনঃ HSC Exam 2022 – ৪৫, ৫০, ৫৫ ভিতর কত পেলে কোন গ্রেড ?

সংগঠন কোন ধরনের কর্মসূচি না রাখে। শিক্ষার্থীরা যেন ভালোভাবে তাদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারে।

কিন্তু সে বিষয়ে কতটুকু ভাবছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

এই দুঃসংবাদ প্রসঙ্গে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বলছে কোন ধরনের রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার জন্য এই পরীক্ষার মধ্যে না হয়।

আরও পড়ুনঃ ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা শিক্ষা মন্ত্রণালয় জরুরী নির্দেশনা

তারা যেন পরীক্ষা সুন্দর মতো দিতে পারে। যদি কোন ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করা হয় তার জন্য পরীক্ষায় পরবর্তীতে রাখা হয়।

এই মুহূর্তে তারা পরীক্ষা কথা ভাবছে তাছাড়া পরীক্ষা শিখিয়ে দে অনেক পিছিয়ে গেছে তাদের বাস্তব জীবনের প্রভাব ফেলছে।

তবে আশা করা যাচ্ছে এই নভেম্বর মাসে পরীক্ষার মধ্যে সরকার বা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে কোনো ধরনের সমাবেশের অনুমতি দিবে না।

আরও পড়ুনঃ এইচএসসি পরীক্ষা ২০২২ নতুন রুটিন প্রকাশ – সকল বোর্ড দেখে নেও

যদি অনুমতি দেয় তাহলে বাস্তবতায় বলে দিবে কতটুকু সমস্যা তৈরি করছে এইচএসসি পরীক্ষার জন্য।

Write A Comment