Scholarship

৩ টি উপবৃত্তি ঘোষণা – এসএসসি ২০২২ সকলের জন্য

Pinterest LinkedIn Tumblr

যারা চলতি বছর এসএসসি ২০২২ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে অর্থাৎ পাস করেছে তাদেরকে উপবৃত্তি প্রদান করছে সরকার ও বিভিন্ন বেসরকারী প্রতিষ্ঠান।

আজকে আমরা শিক্ষার্থীদের ৩ টি উপবৃত্তি সম্পর্কে তথ্য দিব, যার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা এগুলো পেতে পারে।

আরও পড়ুনঃ

মূলত উপবৃত্তি আবেদনের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া অনলাইনের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়ে থাকে। এখানে শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে

উপবৃত্তির আবেদন করতে পারবে এবং খুব সহজেই উপবৃত্তি পেতে পারেন। সরকার থেকে শিক্ষার্থীদের

উপবৃত্তি দেওয়া হয়ে থাকে, তাছাড়া বেসরকারি ভাবে কয়টি প্রতিষ্ঠান পরীক্ষা দিতে উপবৃত্তি দিবে।

প্রথমত আমরা কথা বলি সরকারি নিয়ে, যেখানে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের মাধ্যমে যারা এ বছর একাদশ

শ্রেণিতে ভর্তি হবে তাঁদের উপবৃত্তি প্রদান করা হবে। একটি ভালো অর্থ শিক্ষাথি দেয়া হয় একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির পড়াশোনা করার জন্য।

আরও পড়ুনঃ

এখানে বিনামূল্যে শিক্ষার্থীরা উপবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। এর আবেদন কার্যক্রম শুরু হবে কলেজে ভর্তি শুরু থেকেই।

তাই জেনে রাখা উচিত কিভাবে আবেদন করবেন। মূলত প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্টের ওয়েবসাইট থেকেই আবেদন সম্পর্কিত সকল তথ্য জানা যাবে।

এর পরবর্তীতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে শিক্ষার্থীদের কে রেজাল্ট এর উপরে উপবৃত্তি প্রদান করে।

যেখানে সাধারণ বৃত্তি ও মেধা বৃত্তি প্রদান করা হয়ে থাকে। এখানে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে কোন

ধরনের আবেদন করতে হবে না, এমনিতেই শিক্ষার্থীরা পাবে প্রতিটি উপজেলা থেকে যারা ভালো রেজাল্ট করেছে তাদেরকে

মেধা বৃত্তি প্রদান করা হয় এবং সাধারন বৃত্তির ক্ষেত্রে অনেক সাধারণ শিক্ষার্থী যারা পাস করেছে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করা হয়ে থাকে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সম্পর্কিত তালিকা বোর্ডের কাছে পাঠায় এবং সেখান থেকে যাচাই-বাছাই করে উপবৃত্তি প্রদান করে।

আরও পড়ুনঃ

বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে হিসেবে উপবৃত্তি প্রদান করে ডাচ বাংলা ব্যাংক। যেখানে তারা প্রায় প্রতি শিক্ষার্থীকে 67 হাজার

টাকার উপবৃত্তি প্রদান করে 10 লক্ষ টাকা সর্বমোট উপবৃত্তি প্রদান করবে। তাই এখানে শিক্ষার্থীরা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে,

যেখানে শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ভালো ফলাফল করে আবেদন করতে হবে। তারা যোগ্যতা হিসেবে চেয়েছে

এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের জন্য জিপিএ 5 থাকতে হবে, গ্রামপর্যায়ে শিক্ষার্থীদের জন্য 90 শতাংশ

বরাদ্দ থাকবে তাই অবশ্যই গ্রামের শিক্ষার্থীরা বেশি প্রাধান্য পাবে তাছাড়া মেয়েদের ৫০ শতাংশ বরাদ্দ থাকবে।

আরও পড়ুনঃ

1 Comment

Write A Comment